Ameen Qudir

Published:
2018-10-20 17:10:23 BdST

ক্লিনিকে নবজাতকের মায়ের রহস্যজনক আত্মহত্যা: কুৎসিত গালিগালাজ ডাক্তার সমাজকে


 


ডা. আতিকুজ্জামান ফিলিপ
______________________

 

ছবির জন্য প্রথমেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। শুধুমাত্র ঘটনার গভীরতা ও ইম্প্যাক্ট বুঝানোর জন্য ছবি পোস্ট করেছি।

প্রাথমিকভাবে বলা হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার একটি ক্লিনিকে চারদিন আগে ভিকটিমের সিজার হয় এবং একটি ফুটফুটে ছেলে সন্তানের জন্ম হয়।
ছুটির সময় ক্লিনিকের বিল পরিশোধ করতে না পেরে ক্লিনিকের ছাদ থেকে সন্তানসহ লাফিয়ে পড়ে আত্মহত্যা করেছে ভিকটিম।

ভিকটিমের স্বামী অনেকদিন যাবৎ প্রবাসে থাকে।
ভিকটিমের পাশের কেবিনের রুগি বলছে,
গতরাতে ফোনে কারো সাথে ভিকটিমের অনেক্ষন যাবৎ উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়েছে।
কেউ কেউ এমনও দাবি করেছে যে আজ সকালে ভিকটিমের মায়ের সাথেও তার ঝগড়া-বিবাদ হয়েছে।
এরপরে ভিকটিমের মা যখন খাবার আনতে বাইরে বেরিয়েছে তখনই এই হৃদয়বিদারক ঘটনাটি ঘটেছে।

আসলে কি ঘটেছে আমরা জানিনা।
স্পটের প্রত্যক্ষদর্শী এবং নেপথ্যের খলনায়ক ছাড়া কেউই এখনো আসল ঘটনা জানেনা!
ঘটনার পেছনের ঘটনাও আমরা কিছু জানিনা!
মিডিয়ায় এখনো তেমন কোন নিরপেক্ষ ও বস্তুনিষ্ঠ অনুসন্ধানী প্রতিবেদন আসেনি!

তার আগেই আমরা একেকজন একেকরকম মনগড়া প্রতিবেদন তৈরি করে ফেলছি!
কেউ ক্লিনিকের পক্ষ নিচ্ছি আবার কেউ কেউ আরেক পক্ষ নিয়ে চিকিৎসকের চৌদ্দগুষ্ঠি উদ্ধার করছি!

টাইমলাইনে অনেককেই দেখছি,
চিকিৎসকদের শাপ-শাপান্ত করছেন।
আমরা বলছি না চিকিৎসকরা ভুলের উর্ধ্বে, শাস্তির উর্ধ্বে।
তবে এই ঘটনার সাথে আদৌ কোন চিকিৎসকের বিন্দুমাত্র কোন সংশ্লিষ্টতা আছে কি-না আগে জানুন তারপর মন্তব্য করুন।
সুযোগ পেলেই আগা-মাথা না ভেবে,
সামনে-পেছনে কিংবা ডানে-বামে কোন অনুসন্ধান না চালিয়েই চিকিৎসককে গালিগালাজ করার মানসিকতা পরিহার করুন।

আমরা কারো পক্ষ নিতে চাই না।
আমরা বলতে চাই যদি ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ ভিকটিমকে তার সদ্যোজাত সন্তানসহ আত্মহত্যায় প্ররোচিত করে তবে এখনই কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আইনানুগ দৃষ্টান্তমূলক ব্যাবস্থা গ্রহণ করতে হবে এবং সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিৎ করতে হবে।

আর যদি 'পোস্টপার্টাম সাইকোসিস' ছাড়া পারিবারিক কোন কলহ বা অশান্তির কারনে এই আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে থাকে তবে পরিবারের যেসব সদস্য ভিকটিমকে আত্মহত্যায় বাধ্য করেছে তাদেরও যথাযথ সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিৎ করতে হবে।
_______________________________

লেখক ডা. আতিকুজ্জামান ফিলিপ
সহ-তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ;স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ
যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক;চিকিৎসক পরিষদ, বিএসএমএমইউ।

সাবেক সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ ছাত্রলীগ দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ শাখা ,দিনাজপুর।


ক্লিনিক-হাসপাতাল এর জনপ্রিয়