Ameen Qudir

Published:
2019-01-17 16:42:06 BdST

শ্রদ্ধাবাংলাদেশের মেডিকেল উচ্চশিক্ষার পথ প্রদর্শক অধ্যাপক ডা. এম এ জলিল চৌধুরী


 




ডেস্ক
____________________

অধ্যাপক ডা. এম এ জলিল চৌধুরী মানেই বাংলাদেশের চিকিৎসা ব্যবস্থার একটি মাইল ফলক। এদেশের মেডিকেল উচ্চশিক্ষায়
তাঁর রয়েছে অসামান্য অবদান ।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের জ্যেষ্ঠ শিক্ষক ও বাংলাদেশ কলেজ অফ ফিজিশিয়ান্স অফ সার্জন্স-এর অনারারি সেক্রেটারি অধ্যাপক ডা. এম এ জলিল চৌধুরী বিদায়ী সংবর্ধনায় সবাই ছিলেন অশ্রুসিক্ত।

১৫ জানুয়ারি বিএসএমএমইউর ডি ব্লকে ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের হলরুমে এ বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, অধ্যাপক ডা. এম এ জলিল চৌধুরী একজন অভিজ্ঞ ক্লিনিশিয়ান, প্রশিক্ষক। চিকিৎসা বিজ্ঞানের পোস্ট গ্রাজুয়েট শিক্ষা ব্যবস্থায় তাঁর রয়েছে অসামান্য অবদান। মানুষ হিসেবেও তিনি সফল।

তিনি বলেন, অধ্যাপক ডা. এম জলিল চৌধুরী সত্যিকারেই একজন ভালো মনের প্রাণবন্ত মানুষ ও গুণী শিক্ষক। রোগীদের প্রতিও তাঁর দরদ, ভালোবাসা ও দায়িত্ববোধ অনুসরণীয় দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

অধ্যাপক ডা. এম এ জলিল চৌধুরী বলেন, কারো ক্ষতি করা নয়, অন্যের উপকার করতে হবে। ভালো কাজ করার চেষ্টা সর্বদাই চালিয়ে যেতে হবে।

ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. জিলন মিঞা সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার, উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. সাহানা আখতার রহমান, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, সাবেক উপ-উপাচার্য অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লাহ, মেডিসিন অনুষদের সাবেক ডীন অধ্যাপক ডা. এ বিএম আব্দুল্লাহ, ইন্টারনাল মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. মোঃ আব্দুর রহিম, এন্ডোক্রাইনোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মোঃ ফরিদ উদ্দিন, রিউমাটোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. নজরুল ইসলামসহ ছাত্রছাত্রী, চিকিৎসক, কর্মকর্তা, নার্স ও কর্মচারীবৃন্দ।

সংবাদ সূত্র বিএসএমএমইউ বিজ্ঞপ্তি।


বিএসএমএমইউ এর জনপ্রিয়